বীর মুক্তিযোদ্ধাকে কুপিয়ে হত্যা: বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ


লালমনিরহাটের পাটগ্রামে বীর মুক্তিযোদ্ধা, সাবেক অধ্যক্ষ এম ওয়াজেদ আলী হত্যায় জড়িত সন্দেহে গ্রেপ্তার যুবককে ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত। বুধবার (২৫ জানুয়ারি) সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শুনানি শেষে ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। পাটগ্রাম থানার ওসি উমর ফারুক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

অপরদিকে বীর মুক্তিযোদ্ধা হত্যার ঘটনায় বিচারের দাবিতে পাটগ্রামের বিভিন্ন স্থানে মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ হয়েছে। বুধবার (২৫ জানুয়ারি) দুপুর  ১২টার দিকে উপজেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে চৌরঙ্গী মোড়ে মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করা হয়। 

এছাড়াও মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতি, পাটগ্রাম আদর্শ কলেজ, সম্মিলিত নাগরিক সমাজের উদ্যোগে পাটগ্রাম উপজেলার বিভিন্ন স্থানে মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

মানবন্ধনে বক্তারা বীর মুক্তিযোদ্ধা ও অধ্যক্ষ এম ওয়াজেদ আলীর হত্যাকারীদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।
 
বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য দেন পাটগ্রাম উপজেলা চেয়ারম্যান রুহুল আমীন বাবুল, পৌর মেয়র রাশেদুল ইসলাম সুইট, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পূর্ণ চন্দ্র রায়, সম্মিলিত নাগরিক সমাজের আহ্বায়ক শমসের আলী, সাবেক অধ্যক্ষ শহিদুল্লাহ প্রধান, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আল মামুন শুভ, সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হোসাইন নিরবসহ আরও অনেকে।
     
গত ২০ জানুয়ারি রাত সাড়ে ৯টার দিকে পাটগ্রাম পৌর এলাকার পূর্বপাড়ায় দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে নিহত হন সাবেক অধ্যক্ষ ওয়াজেদ আলী। শনিবার রাতে নিহতের ছেলে রিফাত হাসান বাদী হয়ে পাটগ্রাম থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। মামলায় প্রতিবেশী আব্দুস সামাদ প্রধানের ছেলে নাহিদুজ্জামান বাবু ও অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের আসামি করা হয়। হত্যায় জড়িত সন্দেহে পুলিশ পূর্বপাড়া এলাকার মৃত আব্দুল মতিনের ছেলে আলমগীর হোসেন আব্দুল্লাহকে (২৮) গ্রেপ্তার করে। মামলার আসামি নাহিদুজ্জামান বাবু ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছে।





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *